৫ মাসের সর্বনিম্ম প্রাইসে -EURUSD

- Advertisement -

EURUSD ধারাবাহিকভাবে ১২ সপ্তাহের মতো ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখে বছরের সর্বনিন্ম প্রাইসের দিকে যাচ্ছে।গতকাল পেয়ারটি মার্কিন ডলারের বিপরীতে কিছুটা প্রতিরোধ করতে গেলেও পরবর্তীতে পেয়ারটি ধারাবাহিকভাবে কমতে শুরু করে।  বর্তমানে EURUSD ১.১৭১০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে।আজ বুধবার পেয়ারটি ১.১৭২০ প্রাইসে ওপেন হলেও পরবর্তীতে কমতে থাকে এবং সর্বনিম্ম ১.১৭০৫ প্রাইসে হিট করে।

RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী EURUSD পেয়ারের বিয়িারিশ অবস্থান আরও শক্তিশালী হতে পারে।  সেলাররা ১.১৭০০ প্রাইস ভেঙ্গে নিচে নামার অপেক্ষা করছে।প্রত্যাশা করা হচ্ছে, পেয়ারটি উক্ত প্রাইস ভেঙ্গে নিচে নামলে বিয়ারিশ অবস্থান শক্তিশালী হতে পারে। পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে নভেম্বরের সর্বনিন্ম প্রাইস ১.১৬০০।

এদিকে নিউইয়াক সহ জার্মান এবং ইউরোপে করোনাভাইরাসের ডেলটা ভেরিয়েন্ট সংক্রামণ ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। দেশটির প্রশাসন ভাইরাস প্রতিরোধের ক্ষেত্রে কঠোরতা দেখাচ্ছে। যা আমেরিকে এবং ইউরোপিয়ান ইকোনমির ক্ষেত্রে কিছুটা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

আজ মার্কিন বেশ কিছু নিউজ আছে, সিপি আই এবং কোর সিপি আই কে কেন্দ্র করে EURUSD পাইস আরো কমতে পারে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, CPI ০.৯% থেকে কমে ০.৫% এবং Core CPI ০.৯% থেকে কমে ০.৪% আসতে পারে।  ইভেন্টগুলো প্রত্যাশা অনুযায়ী  এবং মুদ্রাস্ফীতি স্লোডাউন হয়, তাহলে মার্কিন ডলার শক্তিশালী হতে পারে।

 পেয়ারের প্রাইস পুনরায় কমতে শুরু করলে পেয়ারটির বর্তমান  সাপোর্ট হতে পারে ১.১৬৫০ এবং পরবর্তী সাপোর্ট ১.১৬০০।এছাড়া পেয়ারটির বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১.১৭৫০ এবং ১.১৮০০।

- Advertisement -

সাম্প্রতিক

- Advertisement -

Related news

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here