ADP রিপোর্টে প্রভাবিত হতে পারে -GBPUSD

- Advertisement -

গত সপ্তাহের শুরুতে  ফেডারেল রিজার্ভের চেয়ারম্যান জেরেমি পাওয়েলের আলোচনাকে কেন্দ্র করে মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেতে থাকে যার ফলস্রুপ গতসপ্তাহে  GBPUSD পেয়ারটি সর্বনিম্ম ১.৩৪১০ প্রাইসে গেলেও পরবর্তীতে পেয়ারটির দাম বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে, এছাড়া গতকাল মার্কিন পি এম আই রিপোর্টে কে কেন্দ্র করে মার্কিন ডলারের বিপরীতে ব্রিটিশ পাউন্ডের দাম বাড়তে থাকে, আজ বুধবার পেয়ারটি সর্বোচ্চ ১.৩৬৩০ প্রাইসে গেলেও বর্তমানে প্রাইস কিছুটা কমে ১.৩৬১০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে।

কমার্জব্যাংক অ্যানালাইসিস্ট টিম প্রধান কারেন জনসের মতে, গত দুদিন পেয়ারের মুভমেন্ট সীমিত থাকলেও আজকের সেশনে বৃদ্ধি পেতে পারে। জনসের  মতে, পেয়ারটি আজ ১.৩৬৫০ প্রাইসে যেতে পারে । তবে উক্ত প্রাইস অতিক্রমে সক্ষম হলে পুনরায় আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। এক্ষেত্রে পেয়ারটি ১.৩৭০০ অতিক্রম করলে পরবর্তীতে ১.৩৮০০ প্রাইসে যেতে পারে।

 আজ মার্কিন ADP রিপোর্টে কে কেন্দ্র করে পেয়ারটি পুনরায় আপট্রেন্ডে আসতে পারে, সেপ্টেম্বরের ADP রিপোর্টে ৩ লক্ষ্য ৭৪ হাজার  আসলেও অষ্টোবরে তা বেঁড়ে ৪ লক্ষ্য ২৫ হাজার আসতে পারে এছাড়া দুপুর ২.৩০ মিনিটে প্রকাশিত হবে ব্রিটিশ Construction PMI এবং রাত ৮.৩০ মিনিটে মার্কিন Crude Oil Inventories প্রকাশিত হবে এছাড়া এফ এম স্যার আজ গুরুত্বপূর্ণ কিছু ইভেন্ট আছে যা মার্কিন ডলারের বিপরীতে পাওন্ডকে প্রভাবিত করবে ।

 পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট ১.৩৫৬০। পরবর্তী সাপোর্টগুলো হতে পারে ১.৩৫০০, ১.৩৪৫০ ।

অপরদিকে পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স ১.৩৬৬০। GBPUSD আপট্রেন্ড অব্যাহত রাখতে সক্ষম হলে সেক্ষেত্রে  ১.৩৭২০ ও ১.৩৭৫০ রেজিস্ট্যান্সে যেতে পারে।

- Advertisement -

সাম্প্রতিক

- Advertisement -

Related news

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here