জার্মান PMI রিপোর্টে প্রভাবিত হতে পারে GBPUSD

- Advertisement -

মার্কিন এবং ব্রিটিশ ডাটাকে কেন্দ্র করে পুনরায় আপট্রেন্ডে আসতে শুরু করেছে ব্রিটিশ পাউন্ড,গতকাল পেয়ারটি কয়েক সপ্তাহের সর্বনিম্ম ১.৩৬০৮ প্রাইসে হিট করলেও আজ পেয়ারটি মার্কিন ডলারের বিপরীতে শক্তিশালী অবশ্তানে আছে পেয়ারটি বর্তমানে ১.৩৬৭০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে মুলত এফ এম সি মিটিং কে কেন্দ্র করে পাউন্ডের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে।

আজকে পেয়ারটিকে  প্রভাবিত করার মতো বেশ কিছু নিউজ রয়েছে ইভেন্টগুলোর মধ্যে অন্যতম জার্মান/ মার্কিন PMI রিপোর্ট। দুপুর ২.৩০ মিনিটে প্রকাশিত হবে Flash Manufacturing PMI , Flash Services PMI, এছাড়া বিকেল ৫ টায় Asset Purchase Facility, MPC Asset Purchase Facility Votes, Monetary Policy Summary, MPC Official Bank Rate Votes, Official Bank Rate, এছাড়া রাত ৭.৩০ মিনিটে মার্কিন Flash Manufacturing PMI, Flash Services PMI।

জার্মানজোনে মেনুফেকচারিং পিএমআই সেপ্টম্বরে ৬০.৩ থেকে কমে ৫৯.০ এবং সার্ভিস পিএমআই ৫৯ অপরিবর্তীত থাকতে পারে।এছাড়া মার্কিন মেনুফেকচারিং পিএমআই মার্কেটে মুভমেন্ট সৃষ্টি করতে পারে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, সেপ্টেম্বরে মেনুফেকচারিং পিএআই ৬১.১ থেকে বেড়ে ৬১.৫ পয়েন্টে আসতে পারে।  জার্মান, মার্কিন রিপোর্টগুলো গতবারের  থেকে ভাল আসার সম্ভাবনা রয়েছে। যা ব্রিটিশ পাউন্ডকে  প্রাইস বৃদ্ধিতে সহায়ক হতে পারে।এছাড়াও চলতি সপ্তাহে ফেডারেল রিজার্ভের ইন্টারেস্ট রেট ডিসিশন গুরত্বের সাথে দেখা হচ্ছে।পরবর্তীতে যা মার্কেটে মুভমেন্ট সৃষ্টি করতে পারে।

 পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স ১.৩৮৯৩,পেয়ারটির দাম বৃদ্ধি পেলে পরবর্তীতে মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.৩৯১৪ যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ারটি ১.৩৬২০ প্রাইসের নিচে আসলে ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে।  সেক্ষেত্রে জুলাই মাসের নিন্ম প্রাইস ১.৩৫৭১ যেতে পারে।

- Advertisement -

সাম্প্রতিক

- Advertisement -

Related news

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here