NFP রিপোর্টকে কেন্দ্র কেন্দ্র করে আপট্রেন্ডে আসতে পারে- GBPUSD

- Advertisement -

আজ ইউরোপিয়ান সেশনের শুরুর দিকে GBPUSD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ২ সপ্তাহের সর্বোচ্চ ১.৩৮৩৮ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। গতকাল পেয়ারটি  ১.৩৭৬৬ প্রাইসে ওপেন হলেও পরবর্তীতে দাম বাড়তে থাকে এবং সর্বোচ্চ ১.৩৮৩৭ প্রাইসে হিট করে মুলত গতকাল মার্কিন রিপোর্ট Unemployment Claims জুলাই মাসে ৩ লক্ষ্য ৪২ হাজার থেকে কমে আগস্টে ৩ লক্ষ্য ৪০ হাজার  এসেছে। এছাড়া এ সপ্তাহে প্রকাশিত মার্কিন ADP জব ডাটা প্রত্যাশার তুলনায় খারাপ আসায় ডলারের ডাউনট্রেন্ডের সাথে সাথে পাউন্ডের আপট্রেন্ড বৃদ্ধি পাচ্ছে।এ সুযোগে ডলারের বিপরীতে ব্রিটিশ পাউন্ড শক্তিশালী হয়ে ২ সপ্তাহের সর্বোচ্চে অবস্থান করছে।

আমাদের পূর্বের আর্টিকেলে আমরা উল্লেখ করেছি যে ক্রেডিট সুইস অ্যানালাইসিস্টদের মতে মার্কিন ডাটাকে কেন্দ্র করে আজ পাউন্ডের দাম বৃদ্ধি পেতে পারে এবং পেয়ারটি ১.৩৮০০ প্রাইস ক্রস করবে,প্রতাশা অনুযায়ী পেয়ারটি ১.৩৮০০ প্রাইস ক্রস করে ১.৩৮৩৮ প্রাইসে হিট করেছে। 

বিনিয়োগকারীদের বর্তমান নজর শুক্রবার প্রকাশিত সেপ্টেম্বর মাসের Nonfarm Payrolls রিপোর্টের দিকে। মার্কিন ডলার তৃতীয় দিনের মতো ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখে ৯২.২২ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। 

এছাড়া সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিটে প্রকাশিত হবে মার্কিন Average Hourly Earnings m/m, Unemployment Rate,এবং  রাত ৮ টায় ISM Services PMI প্রকাশিত হবে।

প্রত্যাশা করা হচ্ছে, মার্কিন ননফার্ম পেরোলস রিপোর্ট গতবারের থেকে ভাল আসার সম্ভাবনা রয়েছে।  রিপোর্টটি ফেডারেল রিজার্ভের প্রেসিডেন্ট জেরেমি পাওয়েলের মুভমেন্ট কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হবে কিনা সেটা দেখার বিষয়।

ননফার্ম পে-রোলস  ৯ লক্ষ ৪৩ হাজার থেকে কমে ৭ লক্ষ্য ২০ হাজার আসার সম্ভাবনা রয়েছে, এছাড়া Unemployment Rate ৫.৪% থেকে কমে ৫.২% আসতে পারে, এবং  ISM Services PMI ৬৪.১% থেকে কমে ৬১.২% আসতে পারে  রিপোর্টটি প্রত্যাশা অনুযায়ী আসলে মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে।পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট হতে পারে ১.৩৭৮০।  পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ১.৩৭৪০।  অপরদিকে পেয়ার ৫৫ DMA অতিক্রমে সক্ষম হলে ১.৩৮৭০ রেজিস্ট্যান্স যেতে পারে।

- Advertisement -

সাম্প্রতিক

- Advertisement -

Related news

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here